February 25, 2024, 4:53 am
শিরোনাম:
মনোহরদীতে শীতার্তদের মাঝে মন্ত্রীপুত্রের শীতবস্ত্র বিতরণ মনোহরদীতে পাট চাষীদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত কক্সবাজারে অর্থের বিনিময়ে মেহেদী পত্রিকার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রচারের কলেজ ছাত্র সোহেল কে হয়রানির অভিযোগ মনোহরদীতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ছয় লাখ টাকা জরিমানাসহ গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে ইটভাটা মনোহরদীতে মন্ত্রীপুত্রকে ফাঁসাতে মিথ্যা নাটক সাজানোর প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন অবৈধভাবে ইটভাটা পরিচালনা ও মাটি কাটার অপরাধে ৪ জনকে কারাদণ্ডসহ ৫ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড, এক্সক্যাভেটর আটক ফেসবুকে ভিডিও ভাইরাল, ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক নৌকার ভোটারদের কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা মনোহরদীতে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের মাঝে পোশাক বিতরণ মনোহরদীতে শীতার্তদের মাঝে ইউএনও র শীতবস্ত্র বিতরণ মনোহরদীতে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “আমরা মনোহরদীর সন্তান” এর ১যুগ পূর্তি উদযাপন

মৌলভীবাজারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান: বাল্যবিবাহ নিরোধে ১০,০০০ টাকা জরিমানা

মামুনুর রশীদ, মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি
  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২০
  • 219 দেখুন
মৌলভীবাজারে বাল্যবিবাহ নিরোধে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত  পরিচালিত হয়েছে।শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, মীর নাহিদ আহসান এর নির্দেশনায় ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে সদর উপজেলার ১২ নং গিয়াসনগর ইউনিয়নের গোমড়া গ্রামে ভ্রাম্যমান আদালতের এ অভিযান পরিচালিত হয়।
জেলার বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. তানভীর হোসেন এবং জনাব মো: রুহুল এর মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় সরেজমিন দেখা যায়, পাত্র পক্ষের পাত্রী পছন্দ হলেই বিয়ের পরিপূর্ণ প্রস্তুতি ছিল পাত্রীর বাবার। সেখানে ২০/২৫ জনের খাবারের আয়োজনসহ বিয়ের পোশাকে সাজিয়ে রাখা হয় পাত্রীকে।
সরেজমিন জানা যায়, পাত্রীর বাবা তার মেয়ের বয়স ১৮ বছর বানানোর জন্য ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় মিথ্যা জন্মতারিখ দিয়ে একটি মনগড়া ‘জন্ম সনদ’ তৈরি করেন। পরবর্তীতে অধিকতর চাপ প্রয়োগে পাত্রীর জে.এস.সি রেজিস্ট্রেশন ও এডমিট কার্ডের মূল কপি বের করানো হয়। সে অনুযায়ী পাত্রীর বয়স ১৬ বছর ০৫ মাস ০৭ দিন হয়েছে প্রমান পাওয়া যায়।
এমতাবস্থায় বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন, ২০১৭ এর ধারা ৭ (১) অনুযায়ী পাত্রকে ৫,০০০ টাকা এবং একই আইনের ধারা ৮ অনুযায়ী পাত্রীর বাবাকে ৫,০০০ টাকা মোট ১০,০০০ টাকা জরিমানা প্রদান করে আদায় করা হয়।
একই সাথে উভয় পক্ষ হতে মুচলেকা নেয়া হয় এই মর্মে যে, পাত্রীর বয়স ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে করবেন না, বা দিবেন না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

https://bd24news.com © All rights reserved © 2022

Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102