February 25, 2024, 6:32 am
শিরোনাম:
মনোহরদীতে শীতার্তদের মাঝে মন্ত্রীপুত্রের শীতবস্ত্র বিতরণ মনোহরদীতে পাট চাষীদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত কক্সবাজারে অর্থের বিনিময়ে মেহেদী পত্রিকার বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রচারের কলেজ ছাত্র সোহেল কে হয়রানির অভিযোগ মনোহরদীতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ছয় লাখ টাকা জরিমানাসহ গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে ইটভাটা মনোহরদীতে মন্ত্রীপুত্রকে ফাঁসাতে মিথ্যা নাটক সাজানোর প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদকের বিরুদ্ধে মানববন্ধন অবৈধভাবে ইটভাটা পরিচালনা ও মাটি কাটার অপরাধে ৪ জনকে কারাদণ্ডসহ ৫ লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড, এক্সক্যাভেটর আটক ফেসবুকে ভিডিও ভাইরাল, ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক নৌকার ভোটারদের কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা মনোহরদীতে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের মাঝে পোশাক বিতরণ মনোহরদীতে শীতার্তদের মাঝে ইউএনও র শীতবস্ত্র বিতরণ মনোহরদীতে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “আমরা মনোহরদীর সন্তান” এর ১যুগ পূর্তি উদযাপন

মনোহরদীতে শীতার্তদের মাঝে ইউএনও র শীতবস্ত্র বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১৬, ২০২৪
  • 71 দেখুন

মনোহরদীতে শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন মনোহরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিবা খান।

গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় কনকনে শীত উপেক্ষা করে শীতবস্ত্র (কম্বল) নিয়ে রাস্তার পাশে শুয়ে থাকা ছিন্নমূল, দরিদ্র ও অসহায় মানুষের গায়ে জড়িয়ে দিলেন শীতের কম্বল।

এসময় তিনি মনোহরদী পৌরসভা, শুকুন্দী, চন্দনবাড়ী, চালাকচর, কাচিকাটা এলাকায় ঘুরেঘুরে শীতার্ত ও অসহায় মানুষগুলোর মধ্যে প্রায় ১শত পঞ্চাশটি কম্বল বিতরণ করেন।

শীতবস্ত্র পেয়ে একজন বলেন, “ইউএনও স্যারকে প্রায়ই ঘুরতে দেহি। স্যার মানুষ তাই কথা কওয়ার সুযোগ পাইনা। আর উনি আমাদের কথা চিন্তা কইরা কম্বল নিয়া আইছে এতে আমরা খুব খুশি অইছি। এই ঠান্ডায় কম্বলটা পাইয়া খুবই উপকার অইলো।”

মনোহরদীর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাছিবা খান বলেন, “তীব্র শীতের প্রকোপে কাঁপছে সারাদেশ। সারাদিনের কাজের ক্লান্তির পর সামান্য শীতের কাপড় মুড়িয়ে কোনোমতে শীত নিবারণের চেষ্টা ছিন্নমূল, অসহায়, দরিদ্র মানুষগুলোর। তাই রাতের বেলায় নিজে ঘুরেঘুরে মানুষগুলোর কষ্ট অনূভব করে, প্রচণ্ড শীত নিবারণের জন্য যাদের ন্যূনতম শীতের গরম কম্বল নেই, তাদের কষ্ট কিছুটা লাঘব করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে এই সহযোগিতা তাদের নিকট পৌঁছে দিচ্ছি।”

তিনি আরও জানান, উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে দ্বিতীয় পর্যায়ে প্রতি ইউনিয়নে প্রায় ৩’শত পিছ করে কম্বল এরই মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। এর আগে আমার পূর্ববর্তী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রথম পর্যায়ে কম্বল বিতরণ করে গেছেন। তাছাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের তাগিদ দেওয়া হয়েছে তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী শীতার্ত অসহায় মানুষগুলোর পাশে এগিয়ে আসার জন্য।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর

https://bd24news.com © All rights reserved © 2022

Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102